মোঃ আল-আমিন, কেরানীগঞ্জ (ঢাকা)প্রতিনিধি: ঢাকার কেরানীগঞ্জে শাক্তা ইউনিয়নের মো: হানিফ নামে এক ইউপি মেম্বারের বিরুদ্ধে নির্মানাধীন একটি বাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি অভিযোগ দাযের করেছে ভ’ক্তভোগী আলী হোসেন সজিব। এ প্রতিবেদককে আলী হোসেন সজিব (৩১) অভিযোগ করে বলেন, তার পিতার নাম মৃত ইব্রাহীম বেপারী। তিনি শাক্তা ইউনিয়নের ঝাউচর এলাকায় সীমানা প্রচীর নির্মাণ করে টিনশেড ঘর তৈরী কাজ শুরু করি। আজ সকালে(২৮ অক্টোবর) হানিফ মেম্বার, ও তার সহযোগী রজ্জব, কালাম, বাবুল, আবুল, আলাউদ্দিন মোল্লা, মো: ইসলাম, নবী, জহির সহ অজ্ঞাত আরো ১৫/২০ জন বেআইনী ভাবে সীমানা প্রাচীর ভাংচুর করে। এসময় তারা গাছপালা কেটে ফেলে। পরে লোহার গেইট ও টিন খুলে নিয়ে যায় তারা। এসময় বাড়ীর কেয়ারটেকার বাধা দিলে হানিফ মেম্বারের বাহিনী তাকে হাত ও মুখ বেধে অন্যত্র ফেলে রাখে। ভাঙচুরের ঘটনায় প্রায় সাড়ে ছয় লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলেও জানান ভ’ক্তভোগী সজিব। তিনি আরো বলেন, তার বাবা মারা যাবার পরে হানিফ মেম্বার সম্পত্তিটি দখল করার জন্য বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে আসছিল। এছাড়াও হানিফ মেম্বারের নামে এলাকায় এমন আরো অপকর্মের অভিযোগ আছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। এ বিষয়ে কথা বলার জন্য অভিযুক্ত হানিফ মেম্বারের মুঠোফোনে একাধিক বার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। কেরানীগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ কাজী মাইনুল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে আলী হোসেন সজীব নামে একজন থানায় একটি অভিযোগের ভিত্তিতে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জড়িত সকলকে আটকের চেষ্টা চলছে।