Breaking News
Home / রাজনীতি / নওগাঁ-৬ আসনের উপ-নির্বাচনে জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনা

নওগাঁ-৬ আসনের উপ-নির্বাচনে জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনা

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: আগামী ১৭অক্টোবর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের উপ-নির্বাচন। যাচাই-বাছাই শেষে গত ২৮তারিখে প্রার্থীদের মাঝে প্রতিক বরাদ্দের পর থেকে মাঠে নেমেছেন সরকার দলীয় প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হেলাল। অপরদিকে মাঠে নেমেছে বিএনপির প্রার্থী শেখ মো: রেজাউল ইসলাম রেজু। ফলে দুই উপজেলা সদর থেকে তৃণমূল সর্বত্রই বইছে নির্বাচনী হাওয়া। মূল সড়ক ও অলিগলিতে শুরু হয়েছে নৌকা-ধানের শীষের স্লোগান।

চায়ের দোকানের আড্ডার আলোচনায়ও নির্বাচন। সোমবার নওগাঁ-৬- আত্রাই-রাণীনগর সংসদীয় আসনে উপনির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়। জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসারের কাছ থেকে প্রতীক পাওয়ার পরপরই বিভিন্ন এলাকায় (নৌকা) প্রতীক নিয়ে আনোয়ার হোসেন হেলাল ও (ধানের শীষ) প্রতীক নিয়ে শেখ মো. রেজাউল ইসলাম রেজুসহ স্ব-স্ব দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা গনসংযোগে নেমেছে।
এছাড়াও নাশন্যাল পিপলস পার্টির প্রার্থী ইন্তেখাব আলম রুবেল আম প্রতিক নিয়ে অনিয়মিত নির্বাচনের মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। দল মনোনীত প্রার্থীদের প্রতীক জানা থাকায় আগে থেকেই প্রস্তুতি ছিলেন নেতাকর্মীরা। ফলে তারা দ্রুত দলীয় প্রতীকের হ্যান্ডবিল নিয়ে প্রচার শুরু করেন।
মঙ্গলবার বিকেলে নৌকার পক্ষে এক বিশাল নির্বাচনী র্যাালী বের হয়ে উপজেলার বিভিন্ন সড়ক পদক্ষিন করে। রাণীনগর রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয় থেকে উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগের যৌথ আয়োজনে র‌্যালীতে উপস্থিত ছিলেন নওগাঁ-৬ আসনের নৌকা মার্কার মনোনীত প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হেলাল।

র‌্যালী শেষে সন্ধ্যায় উপজেলা বাসস্ট্যান্ড গোল চত্বর এলাকায় পথসভায় আনোয়ার হোসেন হেলাল বলেন, এই আসনের উন্নয়নসহ সারা দেশের সার্বিক উন্নয়নে এলাকাবাসি খুশি হয়ে বারবার নৌকা প্রার্থীকে বিজয়ী করেছে। ইনশাল্লাহ্ আগামী ১৭ অক্টোবর দিন ব্যাপি উন্নয়নের প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোটাররা ভোট দিয়ে আমাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করবে। আত্রাই-রাণীনগরে উন্নয়ন আর জনগণের জানমালের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে আমার শক্ত অবস্থান থাকবে। এলাকাবাসি সার্বিক নিরাপত্তার জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সাথে নিয়ে কাজ করে যাবো। এই ক্ষেত্রে বিশেষ কোনো গোষ্ঠির কাছে মাথা নত করবো না।

অপরদিকে ধানের শীষের মনোনীত প্রার্থী শেখ মোঃ রেজাউল ইসলাম রেজু একই দিন রাণীনগর উপজেলার কনৌজ, হরিশপুর, আতাইকুলা গ্রামসহ বিকেলে ত্রিমোহনী হাটে গণসংযোগ করেছেন। রেজু নির্বাচনী পথসভায় অভিযোগ করে বলেন সরকার দলীয় প্রার্থীর সমর্থকরা প্রতিক বরাদ্দের আগেই তোরন বানিয়েছে। রাণীনগর উপজেলায় বিএনপি সমর্থিতদের কোন প্রকারের নির্বাচনী কর্মকান্ড করতে দেওয়া হচ্ছে না। প্রচার শুরুর পর থেকে আমার পোস্টার ছিড়ে ফেলা হচ্ছে। আমার দলের লোকদের ভয়ভীতি প্রদান করা হচ্ছে। একেমন আচরন। বিষয়গুলো প্রশাসনকে জানিয়েও আজ পর্যন্ত কোন লাভ হয়নি। গণতন্ত্র ও জনগণের ভোটের অধিকার নিশ্চিত করতে আমি নির্বাচনে এসেছি এই নির্বাচনে প্রচারণার ক্ষেত্রে কোনে ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে এর দায়ভার সরকার দলীয় প্রার্থীকে নিতে হবে। ভোটাররা যে ভাবে ধানের শীষের পক্ষে সারা দিচ্ছে। সাধারন মানুষরা যদি ভোট দেওয়ার সুযোগ পায় তাহলে আগামী ১৭অক্টোবর আমি বিপুল ভোটে জয়ী হবো। #

About admin

Check Also

আসন্ন রাড়িখাল ইউপি নিবার্চনে চেয়ারম্যান পদে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী বারী খান (বারেক)

মোহাম্মদ জাকির লস্কর : মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার রাড়িখাল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকার মনোনয়ন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *