Breaking News
Home / গ্রাম-গঞ্জ / নওপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

নওপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, লৌহজং থেকে।।মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার নওপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃজহিরুল হক ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ডাঃ মুসলেম খান মন্টুর বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম দুর্নীতি ঘুস বানিজ্য,টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে।
এলাকাবসীর অভিযোগ উক্ত বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের দুর্নীতি কারনে ৫১ বছরের পুরানো নওপাড়া উচ্চবিদ্যালয়ের সুনাম বিনষ্ট হচ্ছে।
এব্যাপারে এলাকাবাসী অভিভাবক ও ছাত্রছাত্রীরা হতাশাগ্রস্ত,আজ শিক্ষা দেয়ার নামে শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায়সহ ব্যাপক অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ আনে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও অভিভাবকরা,প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির দুর্নীতি বিরুদ্ধে বিগত ২০১২-১৩ সালে একটি অডিট কমিটি গঠন করা হয় এলাকাবাসী কাছে তথ্য প্রদান করতে বলা হয়। কমিটি গঠনের পরেও কোন প্রকার শুরাহ এখন পর্যন্ত হয়নি।
বিদ্যালয়ের দুর্নীতি প্রসংগত উল্লেখ করে এলাকবাসীর পক্ষে উক্ত বিদ্যালয়ের ৪ বারের নির্বাচিত অভিভাবক সদস্য মো.আওলাদ হোসেন উরফে জগলু বেপারী স্বাক্ষরিত বরাবর.গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী ও মাননীয় সচীব মহোদয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়,বাংলাদেশ সচিবালয় আব্দুল গণি রোড,সেগুনবাগিচা,ঢাকা। মাননীয় চেয়ারম্যান,দূর্নীতি দমন কমিশন,সেগুনবাগিচা,ঢাকা। জেলা প্রশাসক,মুন্সীগঞ্জ।জেলা শিক্ষা অফিসার,(উচ্চ মাধ্যমিক)মুন্সীগঞ্জ। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা,লৌহজং থানা। উপজেলা শিক্ষা অফিসার(উচ্চ মাধ্যমিক)লৌহজং,মুন্সীগঞ্জ। এর কাছে নওপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃজহিরুল হক ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ডাঃমুসলেম খান মন্টুর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১০ সালের পর থেকে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক ছাত্রছাত্রীদের কাছ থেকে বেতনের টাকা থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায় করে,শিক্ষক নিয়োগে ঘুস বানিজ্য,বিদ্যালয়ের কাজের অর্থ হতে চেকের মাধ্যমে বিদ্যালয়ের সদস্যদের টাকা ধার দেয়া,বিদ্যালয়র জমি নামজারির নামে অতিরিক্ত টাকা খরচ দেখানো,বিদ্যালয় সংলগ্ন বিদ্যুতের খুঁটি সরানোর নামে টাকা আত্মসাৎ,বিভিন্ন ভুয়া ভাউচারের মাধ্যমে বিদ্যালয়ের ফান্ডের আত্মসাৎ,সভাপতি ছেলের বিবাহের জন্য বিদ্যালয় ফান্ড থেকে চেকের মাধ্যমে টাকা গ্রহন,শিক্ষকদের এম.পিও ভূক্তির জন্য নামে টাকা আত্মসাত,বিদ্যালয়ের পরিবেশ নষ্ট করে জোর পূর্বক বিদ্যালয়ের গেটে দোকান বসিয়ে অবৈধ ভাবে লাভবান হওয়া,বিদ্যালয়ের রেজুলেশন ছাড়া বিদ্যালয়ের নানান প্রয়োজন দেখিয়ে সামগ্রী কেনাকাটায় দুর্নিতী সহ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নানান প্রকার দুর্নীতি দিনের পর দিন করে যাচ্ছেন। এতে কেহই কোন প্রকার প্রতিবাদ করতে সাহস পারছেন না। প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির ক্ষমতার নিকট সকলে অসহায়।এমনকি নিয়মনীতির কোন তোয়াক্কা না করে বিনা রশিদে শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে এসএসসি পাশ শিক্ষার্থীদের প্রশংসাপত্র, নম্বরপত্র ও মূল সনদপত্র প্রদানের ক্ষেত্রে ৩শত টাকা করে আদায় করা হচ্ছে। এ ছাড়া বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পরিক্ষার প্রবেশপত্র বাবদ টাকা আদায়, গাছ কর্তন ও তহবিল তসরূপসহ তার বিরুদ্ধে ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এতে করে অসহায় গরীব শিক্ষার্থীরা পড়েছে বেকায়দায়।  আরো জানা যায়, কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তির যোগসাজসে এবং দলীয় ক্ষমতা অপব্যবহার করে ,বিদ্যালয় পরিচালা কমিটির কোন তোয়াক্কা না করে সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক বিদ্যালয়ের অর্থ আত্মসাৎ করছে। এ ব্যাপারে প্রতিকার চেয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও অভিভাবকরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করে,পরে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির অভিভাবক সদস্য মো. আওলাদ হোসেন, মো.গিয়াস উদ্দিন আহম্মেদ স্বপন,মো. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার(সাবেক সদস্য) মো. সরাফত উল্লাহ দেওয়ান(সাবেক সদস্য) এবং মো.আবদুল কুদ্দুস হাওলাদার(সহকারি প্রধান শিক্ষক নওপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়)সহ শতাধিক অভিভাবকের মত নির্দেশে অভিভাবক সদস্য মো. আওলাদ হোসেনের এলাকাবসীর পক্ষথেকে নওপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জহিরুল হক ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ড:মুসলেম খান(মিন্টু)র বিরুদ্ধে এই লিখিত অভিযোগটি দায়ের করেন।
এব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বলেন, ওই সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম-দুর্নীতির বিষয়ে অভিযোগের কপি পেয়েছি। উপজেলা চেয়ারম্যান এবং ইউএনও স্যারের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

About admin

Check Also

পাটুরিয়ায় ট্রাক নদীতে, চালক নিহত 

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি : মানিকগঞ্জে পাটুরিয়ায় পন্যবাহী ট্রাক ফেরিতে প উঠতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি ট্রাক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *