Breaking News
Home / গ্রাম-গঞ্জ / শ্রীনগরে সন্ত্রাসী রনি বাহীনির তান্ডবে অতিষ্ঠ আড়িয়াল বিলবাসী

শ্রীনগরে সন্ত্রাসী রনি বাহীনির তান্ডবে অতিষ্ঠ আড়িয়াল বিলবাসী

শ্রীনগর(মুন্সীগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ-মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগরে দুধর্ষ সন্ত্রাসী রনি বাহীনির তান্ডবে অতিষ্ঠ আড়িয়াল বিলবাসী। স্থানীয় এলাকার একাধিক ব্যাক্তি অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে উপজেলার বাড়ৈখালী গ্রামের মৃত-জালাল ডাক্তারের ছেলে কাউসার আহম্মেদ রনি ও খালেক মাদবরের ছেলে লিটন ওরফে কানা লিটন এর নেতৃত্বে জহুরুল, জুয়েল, কাজল, বশির,বাবুসহ প্রায় ২০/২৫ জনের একটি সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী বাহীনি গড়ে ওঠে। সন্ত্রাসী এ বাহীনি বাড়ৈখালী এলাকাসহ আড়িয়াল বিল ও এর আশপাশের নিরহ মানুষকে অবৈধ অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে একের পর এক চাঁদা বাজী, ছিনতাই, ডাকাতি, লুটপাট, জমিদখলসহ ত্রাসের রাজ্য কায়েম করে আসছে। বাড়ৈখালী গ্রামের তাসু দেওয়ান জানায়, রনি ও কানা লিটন এর নেতৃত্বে গড়ে ওঠা সন্ত্রাসী বাহীনি আড়িয়াল বিলের বিভিন্ন ডাঙ্গার নিরীহ মালিকদের কাছ থেকে মোটা অংকের চাঁদা আদায়, মাছ লুট, জমিদখল করে আসছে। এর পূর্বে এ বাহীনি পুলিশের বন্দুক যুদ্ধে নিহত একাধিক হত্যা ও ডাকাতি মামলার সাজা প্রাপ্ত আসামী সোহরাব ও তাজেল বাহিনীকে সাথে নিয়ে বাড়ৈখালী গ্রাম সংলগ্ন আড়িয়াল বিলে জোড় পূর্বক একটি খাস জমি দখল করে মাটি কেটে ডাঙ্গা তৈরী করে। পরে তারা ওই ডাঙ্গার পাড়ে একটি ডেড়া ঘর তৈরী করে। শুকনো মৌসুমে বিভিন্ন বাড়িতে ডাকাতি, মাদক ব্যবসাসহ জোড় পূর্বক আড়িয়াল বিলে অন্যের জমির মাটি কেটে অন্যত্র স্তব করে রেখে বর্ষা মৌসুমে ট্রলার যোগে আশ পাশের বিভিন্ন ইট ভাটার মাটি বিক্রয় থাকে। এছারা আড়িয়াল বিলে অন্য ট্রলার মাটি কাটতে আসলে তারা প্রতি ট্রলারে মোটা অংকের চাঁদা আদায় করে থাকে। শীর্ষ সন্ত্রাসী তাজেল ও সোহরাব পুলিশ ও র‌্যাবের বন্দুক যুদ্ধে নিহত হওয়ার পর রনি ও কানা লিটন বাহিনী বিভিন্ন অপরাধ মূলক কর্মকান্ড চালিয়ে গেলেও ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেনা। গত ২১ জুলাই বাঘড়া ইউনিয়নের কাঠালবাড়ী গ্রামের হারুনের শ্রমিকরা ট্রলার নিয়ে মাটি কাটতে আড়িয়াল বিলে এলে রনি, কানা লিটন, মাহবুব, জহুরুল, জুয়েলসহ প্রায় ৫/৬ জনের একটি সন্ত্রাসী বাহীনি হারুনের শ্রমিকদের মারপিট করে সব কিছু লুট করে নিয়ে যায় ও তাদের কাছে ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে। এ ব্যাপারের হারুন বাদী হয়ে শ্রীনগর থানায় রনি বাহিনীর বিরুদ্ধে মারপিটসহ চাঁদা বাজির একটি মামলা করে। যাহার মামলা নং-২৬। এলাকাবাসী জানায়, রনি বাহিনীর অন্যতম সহযোগী কানা লিটন শ্রীধরপুর ও আলমপুর এলাকার সিরাজ ও বাবু হত্যার জোড়া খুনের আসামী। শুধু তাই নয়, বাড়ৈখালী ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা মিলন এ রনি বাহীনির অপরাধ মূলক কর্মকান্ড প্রতিবাদ করায় গত কাল শুক্রবার তার উপর হামলা চালায় রনি বাহীনি। আহত মিলনকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছারা এ বাহীনি পুলিশের চোখ ফাকি দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছে। সন্ত্রাসী রনি ও কানা লিটন বাহীনির অপরাধ কর্মকান্ড সম্পর্কে বাড়ৈখালী ইউপি চেয়ারম্যান সেলীম তালুকদারের কাছে জানাতে চাইলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে প্রশাসনের সার্বিক সহযোগীতা করার জন্য জানান হয়েছে। এ ব্যাপারে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ ইউনুচ আলীর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানায়, এ বাহীনির বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

About admin

Check Also

মঠবাড়িয়া পৌর শহরের ১৬০০ মিটার সড়কের সংস্কার কাজ শীঘ্রই শুরু

মাহামুদুল হাসান (হিমু) মঠবাড়িয়া উপজেলা প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার প্রধান বেহাল সড়কটি অবশেষে সংস্কার হচ্ছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *