Breaking News
Home / গ্রাম-গঞ্জ / শ্রীনগরে এখন গ্রেপ্তার হয়নি সাগর হত্যাকারীরা

শ্রীনগরে এখন গ্রেপ্তার হয়নি সাগর হত্যাকারীরা

সুমন হোসেন শাওন: মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগরে এখন গ্রেফতার হয়নি সাগর হত্যাকারীরা। উপজেলার আলমপুর গ্রামের গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে মদ খেয়ে মাতালদের মারধরের ঘটনায় নিহত সাগরের হত্যাকারীদের কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। মামলার বাদী সাগর দেওয়ানের বাবা জাহাঙ্গীর দেওয়ান অভিযোগ করেণ, গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ আসামীদের ৯জনকে দেখিয়ে দিতে বলছে। ছেলে হারাণোর শোকে কাতর আলমপুর গ্রামের ক্যান্সার আক্রান্ত জাহাঙ্গীর দেওয়ানের পক্ষে আসামীদের খোঁজ দেওয়া কোন ভাবেই সম্ভব হচ্ছেনা। ছেলেকে রক্ষা করতে গিয়ে মারধরের স্বীকার ময়না বেগম পা ভেঙ্গে বিছানায় কাতরাচ্ছেন। উপার্জনক্ষম ছেলেকে হারিয়ে থেমে গেছে বাবা জাহাঙ্গীর দেওয়ানের ক্যান্সারের চিকিৎসা।
গত ১৪ জুন রাতে উপজেলার আলমপুর গ্রামে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে মদ খেয়ে মাতলালী ও মেয়ে ভাড়া করে এনে গভীর রাতে অশ্লীল নৃত্যের প্রতিবাদ করে মারধরের স্বীকার হন বাহারাইন ফেরত যুবক সাগর দেওয়ান (২৪)। ২ দিন পর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এঘটনায় সাগর দেওয়ানের বাবা ৯ জনকে আসামী করে শ্রীনগর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ওই দিন আলমপুর গ্রামের সিদু শেখের মেয়ে ইতির হায়ে হলুদের অনুষ্ঠান চলছিল । রাত গভীর হলে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানকে ছাপিয়ে শুরু হয় ভারাটে মেয়েদের অশ্লীল নৃত্যু ও মদের ঝাঝালো আসর। রাত সাড়ে তিনটার দিকে প্রতিবেশী জাহাঙ্গীর দেওয়ানের ছেলে সাগর দেওয়ান বিয়ে বাড়িতে এসে এর প্রতিবাদ করলে মাতালরা তাকে বেদম প্রহার করে। সাগরের চিৎকারে তার মা ময়না বেগম এগিয়ে আসলে তাকে মেরে পা ভেঙ্গে দেয়। এঘটনায় সাগরের বাবা জাহাঙ্গীর দেওয়ান বাদী হয়ে শান্ত, সাকিব, হাসান, হোসেন, সিদু শেখ, ইদু শেখ, উজ্জল, শফি, নূর হোসেন সহ অজ্ঞাত নামা কয়েক জনকে আসামী করে শ্রীনগর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীনগর থানার এসআই আবুল কালাম জানান, আসামীদের খুজে পাওয়া যাচ্ছেনা। তাদের গ্রেপ্তারের জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে।

About admin

Check Also

পাটুরিয়ায় ট্রাক নদীতে, চালক নিহত 

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি : মানিকগঞ্জে পাটুরিয়ায় পন্যবাহী ট্রাক ফেরিতে প উঠতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি ট্রাক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *