Breaking News
Home / উপ-সম্পাদকীয় / টঙ্গিবাড়ীতে চেয়ারম্যানের অবহেলায় নয় হাজার ভোটারের ভোগান্তি

টঙ্গিবাড়ীতে চেয়ারম্যানের অবহেলায় নয় হাজার ভোটারের ভোগান্তি

টঙ্গিবাড়ী সংবাদদাতা: উপজেলার হাসাইল- বানারী ইউনিয়নে যথাক্রমে সোম, মঙ্গল ও বুধবার স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হয়েছে। বানারী বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তিন দিনে প্রায় নয় হাজার ভোটারের স্মার্ট কার্ড প্রদান করা। আজ বুধবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, হাসাইল-বানারী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আনোয়ার হাওলাদার এর অবহেলা ও অব্যবস্থাপনার কারনে প্রায় নয় হাজার ভোটারকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। ভোটারটা জানান, রোদ বৃষ্টি উপেক্ষা করে সারাদিন স্মার্ট কার্ডের জন্য আমাদের অপেক্ষা করতে হয়েছে। মাথায় উপরে ছাউনী ও বাশ দিয়ে বেড়া দিলে সুষ্ঠভাবে আমরা কার্ড নিতে পারতাম। প্রচুন্ড রোদের তাপ ও ভীড়ের চাপে তিনদিনে প্রায় ত্রিশ জন ভোটার অজ্ঞান হয়ে যান। টঙ্গিবাড়ী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বদরুজ্জামান ভূইয়া জানান, বাশের বেড়া ও উপরে ছাউনি দেওয়ার জন্য চেয়ারম্যান আনোয়ার হাওলাদরকে চিঠি দিয়েছিলাম । কিন্তু তিনি কেন ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি তা আমার জানা নেই। হাসাইল-বানারী ইউপির ৬ নং ওয়ার্ডের সদস্য কুদ্দুস মুন্সী ও ৭ নং ওয়ার্ডের সদস্য আলী আকবর ঢালী জানান, নির্বাচন অফিস থেকে চিঠি দিয়েছে কিনা জানিনা, চেয়ারম্যান এই ব্যাপারে আমাদের অবিহিত করিনি । ৭ নং ওয়ার্ডের বৃদ্ধ ভোটার চাঁন মিয়া বেপারী জানান, ভোটের সময় ভাই ভাই ভোট গেলে ( লেখা অযোগ্য) । ভোট দিয়া চেয়ারম্যান বানাইছি বাশের বেড়া ও ছাউনি দিতে তিন চার হাজার টাকাই না হয় লাগলো। কিন্তু তা না দিয়া চেয়ারম্যান হাজার হাজার মানুষকে ভোগাইলো। প্রচুন্ড রোদের তাপে আজ বুধবার প্রায় আট জন ও গত দুই দিনে প্রায় দশ বারো জন ভোটার অজ্ঞান হয়ে যান। পরে তাদেরকে স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। চেয়ারম্যান আনোয়ার হালদারের এমন অবহেলা ও অব্যবস্থাপনার কারনে ভোটাররা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এ ব্যাপারে জানতে চেয়ে চেয়ারম্যান আনোয়ার হালদারকে ফোন করা হলে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে কথা না বলে তিনি ফোন কেটে দেন।

About admin

Check Also

“ডায়াবেটিসে সুস্থ থাকতে চাই সচেতনতা”

বাংলাদেশে ২৮ শে ফেব্রুয়ারি ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবস পালন করা হয়ে থাকে।ডায়াবেটিস রোগ সম্পর্কে জনসাধারণের মাঝে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *