Breaking News
Home / রাজনীতি / এমপিওর অপেক্ষায় ইসমানির চর উচ্চ বিদ্যালয়, শিক্ষামন্ত্রীর শুভদৃিষ্ট!

এমপিওর অপেক্ষায় ইসমানির চর উচ্চ বিদ্যালয়, শিক্ষামন্ত্রীর শুভদৃিষ্ট!

গাজী মাহমুদ পারভেজঃ- সরকার স্বীকৃত বেসরকারি স্কুল , কলেজ, মাদরাসা এমপিওুর (মাস্থলি পেমেন্ট র্অডার) দীর্ঘ দিনের দাবি পুরন হতে চলেছে। তবে এমপিওু পাবে নীতিমালা অনুসারে পরিচালিত যোগ্য প্রতিষ্ঠানই। নতুন করে এমপিও পেতে পারে প্রায় দুই হাজার বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এতে সরকারের ব্যয় হবে দেড় হাজার কোটি টাকারও বেশি। জানা গেছে প্রায় ১০ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওুর জন্য আবেদন করলেও তাদেও মধ্যে যোগ্য প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা খুব বেশি নেই।
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলছেন এবার এমপিওু নিয়ে অপেক্ষার অবসান হচ্ছে।
এদিকে এমপিওুর অপেক্ষায় ইসমানির চর উচ্চ বিদ্যালয়, শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনির শুভদৃিষ্ট কামনা কর কামনা করছে ইসমানির চর উচ্চ বিদ্যালয়টি। মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার হোসেন্দী ইউনিয়নের ইসমানির চর গ্রামে সকল নীতিমালা মেনে প্রায় ৯২ শতাংশ জমি নিয়ে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠীত হয়। ২০১০ সালে সাবেক মহিলা এমপি এবং প্রাথমিক ও গন শিক্ষা বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের স্থায়ি সংসদিয় কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মমতাজ বেগম অএ এলাকার মানুষের দীর্ঘ দিনের দাবীর পেক্ষিতে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেন এবং সেই বছরই পঠদানের অনুমতি পান বিদ্যালয়টি।
অএ এলাকার ৫-৮ কি:মি: এর মধ্যে কোন উচ্চ বিদ্যালয় না থাকায় বিদ্যালয়ের দাবীটি অত্যন্ত যৌক্তিক ছিলো।
বর্তমানে বিদ্যায়টিতে প্রায় ৪৫০ শিক্ষার্থী রয়েছে। জে এস সি, এস এস সি, পরিক্ষায় বিদ্যালয়ের পাশের হার অত্যন্ত সন্তুুসজনক। বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠীত হবার পর এলাকায় শিক্ষার হার বিশেষকওে মেয়েদের শিক্ষার হার অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। বিদ্যালয়কে কেন্দ্র করে এলাকায় আর্থসামাজিক এবং অর্থণৈতিক অবস্থার উল্লেখযোগ্য ইতিবাচক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী জাতীয় সংসদে ঘোষনা দিয়েছেন নীতেমালা অনুসর করে গড়ে উঠা সর্বোচ্চ সংখ্যক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওু ভুক্ত করা হবে। স্বাধীনতা পরিষোদ এবং এলাকাবাসীর পক্ষ্য থেকে আকুল আবেদন শিক্ষাবান্ধব জননেএি বঙ্গ কন্যা শেখ হাসিনার অত্যান্ত আস্থাভাজন সুযোগ্য শিক্ষা মন্ত্রী ডা.দিপু মনি ঘোশিত সকল নীতিমালা যথাযথভাবে মেনে গড়ে উঠা ইসমানির চর উচ্চ বিদ্যালয়কে এমপিওু ভুক্ত প্রতিষ্ঠান হিসেবে অর্ন্তভুক্ত করে এলাকার শিক্ষার মান বৃদ্ধি হবে।
২০১০ খ্রিষ্ঠাব্দের পর গত ৮ বছরে এমপিওু ভুক্ত হয়নি কোন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। অথচ এই সময়ে ৭ হাজারেরও বেশি বেসরকারি স্কুল, কলেজ, মাদরাসা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ২০১০ এর আগে একাডেমিক স্বীকৃতি পাওয়া ননএমপিও প্রতিষ্ঠানও আছে প্রায় তিন হাজার। সব মিলিয়ে ১০ হাজারেরও বেশি সরকার স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান আছে এমপিওুর অপেক্ষায়।
শিক্ষা মন্ত্রী ডা.দিপু মনি ঘোশিত সকল নীতিমালা যথাযথভাবে মেনে গড়ে উঠা ইসমানির চর উচ্চ বিদ্যালয়কে এমপিওু ভুক্ত প্রতিষ্ঠান হিসেবে অর্ন্তভুক্ত করে এলাকার শিক্ষার মান বৃদ্ধি হবে।

About admin

Check Also

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে রুপান্তরিত হয়েছে ….নওগাঁয় তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *