Breaking News
Home / উপ-সম্পাদকীয় / সখীপুরে ভূমি অফিসে দূর্নীতি ১১৭০ টাকার খারিজ ৭ হাজার টাকা

সখীপুরে ভূমি অফিসে দূর্নীতি ১১৭০ টাকার খারিজ ৭ হাজার টাকা

সখীপুর (টাঙ্গাইল) সংবাদদাতা: টাঙ্গাইলের সখীপুরের হাতীবান্ধা ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ১১৭০ টাকার খারিজে ৭ হাজার টাকা দিয়েও ৯ মাসে মিলেনি খারিজের কাগজ। এ বিষয়ে ‘দৈনিক আজকালের খবর’ পত্রিকার সখীপুর প্রতিনিধি নজরুল ইসলাম নাহিদ টাকা নেওয়ার কথা জানতে চাইলে হাতিবান্ধা ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ওই অফিস সহকারী হারুন সাংবাদিককে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও দেখে নেয়ার হুমকি দেন।
খোজ নিয়ে জানা যায়, সখীপুর উপজেলার হাতিবান্ধা ইউনিয়নের হতেয়া গ্রামের মো. হাকিম মিয়ার ছেলে মো. মিন্টু মিয়া উপজেলার খতিয়ান নং- ০৭, মৌজা হতেয়া, দাগ নং ৬২৩/৬২৪ এর ৬ শতাংশ ভূমির খারিজ করার জন্য অফিস সহকারী হারুনের কাছে তার চাহিদা মোতাবেক ৭ হাজার টাকা দেন। বিভিন্ন তালবাহানা করে দীর্ঘ নয় মাস কাটিয়ে দিলেও কাজের কোন অগ্রগতি না হওয়ায় সাংবাদিক নজরুল ইসলাম নাহিদ এ বিষয়ে (২০ জুন) অফিস সহকারী হারুনকে খারিজের বিষয়ে জানতে চাইলে সে উত্তেজিত হয়ে ওই সাংবাদিকের সঙ্গে চরম অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন।
ভোক্তভোগি হতেয়া গ্রামের মিন্টু মিয়া বলেন, প্রায় ১০ মাস আগে ৬ শতাংশ জমি খারিজ করার জন্য হারুনকে ৭ হাজার দিয়েও খারিজের কাগজ দেই দিচ্ছি বলে নানা তালবাহানা করছেন।
এ ব্যাপারে হাতিবান্ধা ইউনিয়ন ভূমি অফিসের নায়েব বিমল চন্দ্র বলেন, ৬ শতাংশ ওই জমির খারিজের ফি হলো ১১৭০ টাকা এতে সর্বোচ্চ সময় লাগে পঁয়তাল্লিশ দিন। হারুন তার অফিসের অফিস সহকারী । তবে তিনি হারুনকে টাকা দেওয়ার বিষয়টি অবগত নয় বলে জানান।

About admin

Check Also

ঝিনাইদহে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শিশুর মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে সদর উপজেলার ধোপাবিলা গ্রামে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *