টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের সখীপুরে ভাতিজি মমতাজ আক্তারের (২৮) দায়ের কুপে চাচা লুৎফর দেওয়ান (৫৫) গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়নের কালিদাস ফুলঝুড়ি পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত লুৎফর দেওয়ান কালিদাস ফুলড়ঝুড়ি গ্রামের মৃত দারোগালী দেওয়ানের ছেলে। এ ঘটনায় আহতের মেয়ে ছাহেরা বেগম সখীপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।জানা যায়, শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে লুৎফর দেওয়ানের বড় ভাইয়ের মেয়ে ভাতিজি মমতাজ আক্তার (২৮) তার ভাই ও বোনদের সঙ্গে জমিজমা নিয়ে ঝগড়া করছিলো। এমন সময় চাচা লুৎফর দেওয়ান ভাতিজিকে চুপ থাকতে বললে ভাতিজি ঘর থেকে দা নিয়ে চাচা লুৎফর দেওয়ানের ঘরের বেড়া কুপাতে থাকে। এক পর্যায়ে মমতাজ তার হাতে থাকা দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে চাচা লুৎফর দেওয়ানকে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।বহুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া সেলিম ও স্থানীয় ইউপি সদস্য লিটন মিয়া বলেন- মমতাজ একজন মানষিক রোগী। তার বিরুদ্ধে ইতিপূর্বেও অনেক মারামারির বিচার শালিশ করা হয়েছে। তারা পরিবারের পক্ষ থেকে দ্রুত তার চিকিৎসার দাবি জানান।সখীপুর থানার ওসি (তদন্ত) লুৎফুল কবির বলেন-অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।